শিরোনামঃ
দেড় কিলোমিটার হেঁটে চাচাকে মাথায় করে হাসপাতালে নিলেন ভাতিজা আটকে পড়াদের আমিরাতে ফেরার জন্য নির্দেশিকা দিলো এমিরেটস কাতারে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে নতুন সিদ্ধান্ত, কিছু বিধিনিষেধ শিথিল ঢাকা থেকে আরব আমিরাতগামী ফ্লাইটে ট্রানজিট যাত্রী পরিবহনের অনুমতি ৩০ মিনিট পরীর বাসার সামনে থেকে ব্যবসায় সবুজ বাতি এমদাদের কাতারের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক চমৎকার: সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আটক হচ্ছেন চিত্রনায়িকা পরীমণি, বাসায় র‌্যাবের অভিযান চলছে লাইভে এসে চিৎকার করছেন পরীমনি, দরজার বাইরে পুলিশ বিয়েতে যাওয়া হলো না বরপক্ষের, নৌকায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে পরে আছে ২০ জনের লাশ হোটেলে বমি করে ভাঙচুর চালালেন অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়রা
কাতার বিশ্বকাপের পরই ভেঙে ফেলার জন্য তৈরি হয়েছে এই স্টেডিয়াম

কাতার বিশ্বকাপের পরই ভেঙে ফেলার জন্য তৈরি হয়েছে এই স্টেডিয়াম

টুর্নামেন্টের অবকাঠামোগত নির্মাণের সময়েও টেকসই নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে কাতার। দেশটির আয়োজক কর্তৃপক্ষ আরও দা’বি করেছে, ভবন নির্মাণে তারা এমন উপকরণ ব্যবহার করেছে যা সর্বোচ্চ উপযোগিতা দিবে এবং কার্বন নিঃসরণ, আবর্জনার পরিমাণ ও জীববৈচিত্র্যের উপর বিরূপ প্র’ভাব কমাবে।

 

একসময় পারস্য সাগরের তীরের অঞ্চলটিতে জীবনের চিহ্ন ছিল না; সেখানে এখন নানা রঙ এর বাহার এবং জনমানুষে পরিপূর্ণ। আর কিছুদিন পরেই সেখানে শোনা যাবে ৪০ হাজার দর্শকের চিৎ’কার। বলা হচ্ছে কাতারের রাস আবু আবুদ স্টেডিয়ামের কথা; এটিই ইতিহাসের প্রথম ফুটবল স্টেডিয়াম যা আসলে ভে’ঙ্গে ফেলার জন্যই তৈরি। দোহা বন্দরের উপকন্ঠে ৯৭৪টি শিপিং কন্টেইনারের দিয়ে গঠিত রাস আবু আবুদ স্টেডিয়ামে এবার ২০২২ বিশ্বকাপের কোয়ার্টারফাইনাল পর্যন্ত সাতটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

 

সবগুলো কন্টেইনারই পরিশো’ধিত স্টীল থেকে তৈরি এবং গায়ে ৯৭৪ সংখ্যাটি লেখা, যা কাতারের ডায়ালিং কোড এর প্রতীক। এটি একই সাথে দেশটির টেকসই লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের প্রতিশ্রুতি ও নিজস্ব পরিচয়কে তুলে ধরছে। টুর্নামেন্ট শেষ হয়ে যাওয়ার পর এই স্টেডিয়ামের বিভিন্ন অংশ, রিমুভেবল সিট, কন্টেইনার এবং ছাদ পর্যন্ত ভে’ঙ্গে ফেলা হবে এবং কাতার কিংবা কাতারের বাইরের অন্য কোনো খেলার অনুষ্ঠানে বা সাধারণ অনুষ্ঠানে ব্যবহার করা হবে।

 

রাস আবু স্টেডিয়ামের একজন প্রজেক্ট ম্যানেজার, মোহাম্মদ আল আতওয়ান সিএনএনকে বলেন, ‘৪০ হাজার মানুষের ধারণক্ষমতার এই ভেন্যুর প্রতিটি জিনিসই ভে’ঙে স’রিয়ে নেওয়া সম্ভব এবং সেগুলো দিয়ে ২০ হাজার ধারণক্ষমতাসম্পন্ন আরও দুটি স্টেডিয়াম বানানো যাবে। আর এটাই এই স্টেডিয়ামের সৌন্দর্য্য। অন্যান্য সুযোগ সুবিধার পাশাপাশি, কাতার এও প্রত্যাশা করছে যে এই স্টেডিয়ামটি ভবিষ্যত ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজনের অগ্রদূত হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© ২০২১ | বিডি রাইট কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design BY NewsTheme