শিরোনামঃ
বিদেশ থেকে ৩৬ বছর পর নিঃস্ব হয়ে ফেরা প্রবাসীকে নিতে চায়নি স্বজনরাও! দিনাজপুরের তরুণীর প্রেমে হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে চলে আসলো অস্ট্রিয়ার যুবক দুবাইয়ের রাস্তা থেকে ইট পরিস্কার, প্রবাসীর সাথে দেখা করলেন আমিরাতের প্রিন্স ৩১ টাকার ছাড়িয়ে গেছে কাতারি রিয়ালের রেট, দাম কমেছে মানিগ্রামে দুবাই বিমানবন্দরে যাত্রীদের কমপক্ষে ৩ ঘন্টা আগে পৌঁছানোর অনুরোধ পরীমনির ছেলের নাম পছন্দ হয়নি, ‘পরমানন্দ’ রাখতে বললেন তসলিমা আরব আমিরাতে সাপ্তাহিক ছুটি তিন দিন ফুটফুটে সন্তানের ছবি ও নাম প্রকাশ করলেন পরীমনি নিজেদের জন্য কেনা কাতার বিশ্বকাপের টিকেট বিক্রির সুযোগ বিমানবন্দরে যাত্রীদের সঙ্গে ভালো ব্যবহারের কোর্স করানোর সিদ্ধান্ত
১৮ কোটি টাকা খরচ করার পরও বাঁচলো না শিশুটি

১৮ কোটি টাকা খরচ করার পরও বাঁচলো না শিশুটি

বিরল রো’গে আ’ক্রা’ন্ত ১১ মাস বয়সী বেদিকা সৌরভকে প্রায় সোয়া ১৮ কোটি টাকার (১৬ কোটি রুপি) ই’ঞ্জেক’শন দিয়েও বাঁচানো গেলো না। বেদিকা স্পাইনাল মাসকিউলার অ্যাট্রফি (এসএমএ) রো’গে ভো’গছিল। প্রতি দশ হাজারে একজনের রো’গটি হয়। ব্রিটেনে বছরে ৫০ থেকে ৬০ জনের মতো এ রোগে আ’ক্রা’ন্ত হয়। এ রোগ আ’ক্রা’ন্তদের শরীরের সব পেশী ধীরে ধীরে অকে’জো হয়ে যায়।

 

বেদিকার যখন চার মাস বয়স তখন বাবা-মা’র নজরে আসে, মাথা ভে’ঙে আসে। সোজা হয়ে থাকতে চায় না। বাবা সৌরভ বলেন, হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা জানান বেদিকার স্পাইনাল মাসকিউলার অ্যা’ট্রফি হয়েছে। চিকিৎসা হিসেবে একমাত্র উপায় হচ্ছে একটি ই’ঞ্জে’কশন, যা আনতে হবে যুক্তরাষ্ট্র থেকে। ম’হারা’ষ্ট্রের মধ্যবিত্ত বাবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্নভাবে সহায়তার আবেদন জানায়। এগিয়ে আসে সরকারও।

 

একদিকে, ট্যা’ক্স মও’কুফ, অন্যদিকে অনেকে মানব’তার হাত বাড়িয়ে দিলে ওঠে আসে ১৬ কোটি রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৮ কোটি ২৭ লাখ টাকা)। অবশেষে মাস ছয় আগে বেদিকাকে দেওয়া হয় ‘জলজেন্সমা’ নামের ই’ঞ্জেক’শনটি। এটি আমেরিকা, জাপান, জার্মানিতে পাওয়া যায়।

 

সৌরভ ভারতের গণমাধ্যমকে বলেন, ই’ঞ্জেক’শন দেওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছিল বেদিকা। কিন্তু গত ১ আগস্ট হঠাৎ অ’সুস্থ হয়ে পড়ে। শ্বা’স নিতে ক’ষ্ট হচ্ছিল। পরে মহারাষ্ট্রের দিননাথ হাসপাতালে ভর্তির করা হলে সেখানেই থেমে যায় তার হৃ’দস্প’ন্দন। ভারতে এ পর্যন্ত রো’গটিতে আ’ক্রা’ন্ত ১৭ শিশুকে টি’কাটি দেওয়া হয়েছে। এদের অনেকেই সুস্থ হয়েছে। আর চার-পাঁচ বছর কে’টে গেলে বেদিকাও পরিপূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠতো বলে জানিয়েছিলেন চিকিৎসকরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© ২০২১ | বিডি রাইট কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design BY NewsTheme