শিরোনামঃ
কাতারের লুসাইলে রেস্টুরেন্টে শূকরের মাংসের তৈরি পিৎজার মেনু কাতারে আজ থেকে নতুন সময়সূচীতে গাড়ি ফাহাছ করাতে পারবেন মালিক ও চালকরা রক্তের বিনিময়ে আয়োজন করা কাতার বিশ্বকাপ দেখবেন না তিনি টিকিটে ২৫ শতাংশ ছাড়ের অফার দিলো কাতার এয়ারওয়েজ ৩ বছর আগে কাতার গিয়ে জীবিত দেশে ফিরতে পারলেন না নাসির অতিরিক্ত টাকা নিয়ে দেওয়া হয়নি পছন্দের সিট, কাতার এয়ারওয়েজকে জরিমানা কাতার প্রবাসীকে মেরে ৯ দিন পর লাশ দেশে পাঠায় চার মামাতো ভাই দুবাই প্রবাসীদের জন্য চলবে বিমানের দুইটি অতিরিক্ত ফ্লাইট বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ ২০ এয়ারলাইনসের তালিকায় তৃতীয় কাতার এয়ারওয়েজ কাতারের নেওয়া নতুন সিদ্ধান্তে হতাশ প্রবাসী বাংলাদেশিরা
কাতার থেকে দেশে আসলেন প্রবাসী, বিমানবন্দরের হেলথ ডেস্কে গিয়ে পড়লেন ভোগান্তিতে

কাতার থেকে দেশে আসলেন প্রবাসী, বিমানবন্দরের হেলথ ডেস্কে গিয়ে পড়লেন ভোগান্তিতে

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-২৫ ফ্লাইটে গত সোমবার (২০ ডিসেম্বর) রাতে কাতারের দোহা থেকে ঢাকায় আসেন প্রবাসী জমীর উদ্দিন। স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশনা অনুযায়ী, বিদেশফে’রত যাত্রীদের ফ্লাইট থেকে নেমেই প্রথমে অধিদফতরের হে’লথ ডেস্কে যান যাত্রীরা। তবে সোমবার রাতে ওই ডে’স্কে যেতে যাত্রীদের পড়তে হয় বিড়ম্ব’নায়। হেলথ ডেস্কে এতোই ভি’ড় ছিল যে যাত্রীরা বিমানবন্দরে টার্মিনালের ভবনে ঢু’কতে পারেননি। হেলথ ডেস্কের লাইন ধরেছেন গেটের বাইরে থেকেই।

 

জমীর উদ্দিন বলেন, রাতে একসঙ্গে কয়েকটি ফ্লাইট অবতরণের ফলে বিমানবন্দরে অনেক যাত্রীর ভি’ড় ছিল। ফলে আমাদের টার্মিনাল ভবনের বাইরে থেকে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়াতে হয়। একসঙ্গে প্রায় ৬০০-৭০০ মানুষের ভিড়। ডে’স্কের ৭-৮টি কাউন্টারেই মাছের বাজারের মতো ভিড়, হইহুল্লোড় আর ধা’ক্কাধা’ক্কি। সামাজিক দূরত্ব কিংবা স্বাস্থ্যবিধি কোনো কিছুরই বালাই ছিল না। বরং সেখান থেকেই ক’রো’না ছ’ড়ানোর আশ’ঙ্কা তৈরি হয়েছে।

 

সাধারণত স্বাস্থ্য অধিদফতর পরিচালিত ডেস্কে হেলথ ডিক্লারেশন ফরম এবং বিভিন্ন দেশের যাত্রীদের আনা ক’রো’না নে’গেটি’ভ সার্টিফিকেট যাচাই-বাছাই করা হয়। যাচাই-বাছাই শেষে সেই ফরমে সি’ল দিয়ে একটি অংশ রেখে দেওয়া হয়। এই সিল ছাড়া ইমিগ্রেশন করা যায় না। তাই বাধ্যতামূ’লকভাবে দাঁড়াতে হয় এই লাইনে। সরেজমিন বিমানবন্দরে গিয়ে দেখা যায়, হেলথ ডেস্কের ৮টি লাইনে নারী ও শিশুসহ প্রায় পাঁচ শতাধিক লোক দাঁড়ানো।

 

কারো হাতে ছোট লাগেজ, কেউ মাথায় ব্যাগ নিয়েই দাঁড়িয়েছেন লাইনে। বিমানবন্দরে এর আগে এমন চিত্র কখনোই দেখা যায়নি। দীর্ঘ সময়ের ভ্রমণ ক্লা’ন্তির স’ঙ্গে বিমানবন্দরে অপে’ক্ষা ভো’গা’ন্তি বাড়িয়েছে প্রবাসীদের। একই ফ্লাইটের যাত্রী হামিদুল হাসান ঢা’কা পো’স্টকে বলেন, আমরা বাংলাদেশিরা এধরনের ভোগা’ন্তি পেতে পেতে অভ্যস্ত। তবে আমাদের সঙ্গে আসা বেশ কয়েকজন বিদেশি ব্যবসায়ী এধরনের ব্যবস্থাপনা নিয়ে চরম বির’ক্তি দেখিয়েছেন। দেশে ঢুকে বিদেশি কেউ যখন স্বাস্থ্য অধিদফতরের ডেস্কে এধরনের চিত্র দেখে বাংলাদেশ সম্পর্কে তার একটি নে’তিবাচক ধারণা তৈরি হবে।

 

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা শাহরিয়ার সাজ্জাদ বলেন, বর্তমানে আমাদের ৮টি ডেস্ক রয়েছে। আমাদের আরও ডেস্ক রেডি আছে, তবে বিমানবন্দরের আগমনী টার্মিনালে এগুলো বসানোর মতো পর্যাপ্ত জায়গা নেই। তিনি বলেন, দেশে আসা সব যাত্রী একটি গেট দিয়েই প্রবেশ করে, রাস্তা তো একটাই। সেই জায়গায় ৮টির বেশি আর ডেস্ক বসানোর সুযোগ নেই।

 

বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে তিনি আরও বলেন, বর্তমানে দিনে ৮ ঘণ্টা করে রানওয়ে বন্ধ থাকে। তবে ফ্লাইটের সংখ্যা কমেনি। ২৪ ঘণ্টার ফ্লাইট এখন ১৬ ঘণ্টায় নামে। মঙ্গলবারও ৪৮টি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট নেমেছে ঢাকায়। একসঙ্গে এতো ফ্লাইটের যাত্রী আসায় অতিরিক্ত চা’প পড়ে যাচ্ছে আমাদের। শুধু হেলথ ডে’স্ক নয়, বর্তমানে দেশে ফেরা ও দেশ ছেড়ে যাওয়া যাত্রীরা পদে পদে হয়’রানি-ভো’গান্তি’র শি’কার হচ্ছেন শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© ২০২১ | বিডি রাইট কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design BY NewsTheme