বাংলাদেশের ইউনিক মেঘনাঘাট পাওয়ারের ২৪ শতাংশ কিনে নিলো কাতার

বাংলাদেশের ইউনিক মেঘনাঘাট পাওয়ারের ২৪ শতাংশ কিনে নিলো কাতার

বাংলাদেশের বিদ্যুৎকেন্দ্র ইউনিক মেঘনাঘাট পাওয়ার লিমিটেডের ২৪ শতাংশ কিনে নিয়েছে কাতারভিত্তিকি কোম্পানি নেব্রাস পাওয়ার ইনভেস্টমেন্ট ম্যানেজমেন্ট (এনপিআইএম)। দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এনপিআইএম এই শে’য়ার কিনেছে ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসর্টস (ইউএইচআরএল) ও স্ট্র্যাটেজিক ফাইন্যান্স লিমিটেডের (এসএফএল) কাছ থেকে। ইউএইচআরএল, এসএফএল ও জেনারেল ইলেকট্রিক (জিই) যৌথভাবে প্রজেক্টের বাকি ৭৬ শতাংশের মালিক।

 

এ চুক্তি সংক্রান্ত আর্থিক কোনো বিবর’ণী প্রকাশ করা হয়নি, তবে নেব্রাসের সিনিয়র ম্যানেজমেন্ট, বোর্ড অব ডিরেক্টরস, ইউএইচআরএল, এসএফএল ও জিইর এ বিষয়ে পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। মেঘনাঘাট পাওয়ার লিমিটেডের (ইউএমপিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে আছেন দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী চৌধুরী নাফিজ সরাফাত।

 

চুক্তির বিষয়ে নেব্রাস পাওয়ারের চেয়ারম্যান নাসের আল-হাজরি গালফ নিউজকে বলেন, ‘ইউনিক মেঘনাঘাট পাওয়ারের ইকুইটি শে’য়ার অধিগ্রহণ ও এ খাতে স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান ইউএইচআরএল ও এসএফএলের সঙ্গে অংশীদারত্ব প্রতিষ্ঠা আমাদের শুধু জ্বা’লানির ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতেই সাহায্য করবে না, এটি নেব্রাসের বাংলাদেশি জ্বালানি খাতে প্রবেশের ক্ষে’ত্রে একটি কৌশ’লগত ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে।’

 

নেব্রাসের সিইও খালিদ মোহামেদ জোলো বলেন যে, তারা কোম্পানিটির পরিচ্ছ’ন্ন জ্বালানির উৎসে ভবিষ্যৎ বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশকে একটি শক্তিশালী প্রবৃ’দ্ধির বাজার হিসেবে বিবেচনা করেন। ইউনিক মেঘনাঘাট নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁর মেঘানাঘাটে ৫৮৪ মেগাওয়াটের কম্বাইন্ড সাইকেল পাওয়ার প্ল্যান্ট তৈরি করছে। প্রজেক্টটির মূল শক্তির জোগানদাতা এবং এর কোরে ব্যবহার করা হবে বিশ্বের অন্যতম কার্যকর জিই কোম্পানির অত্যাধুনিক ৯এইচএ.জিরো ওয়ান গ্যাস টা’রবাইন।

 

প্ল্যান্টটি সম্পূর্ণ হওয়ার পর এটি হবে বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ ‘স্বাধীন বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী’ প্রকল্পগুলোর একটি। এটি আগামী ২২ বছরের জন্য বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডকে বিদ্যুৎ সরবরাহ করবে। নেব্রাসের চিফ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট অফিসার ফয়সাল আল-সিদ্দিকি বলেন, ‘সর্বশেষ এ অধিগ্রহণ ও অংশীদারিত্ব শীর্ষস্থানীয় বৈশ্বিক জ্বালানি বিনিয়ো’গ কোম্পানিগুলোর মধ্যে একটি হওয়ার এবং আমাদের সম্পদের ভি’ত্তিকে বৈচিত্র্যময় করার যে উচ্চাকা’ঙ্ক্ষা, তারই উদাহরণ।

 

এই চু’ক্তি অনুযায়ী, নির্ভরযোগ্য জ্বালানি সরবরাহ করার পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর আর্থিক রি’টার্ন তৈরি করা গ্রিনফিল্ড ও ব্রাউনফিল্ডের উন্নয়নের ওপর মনোযোগ দেয়া অব্যাহত রাখবে নেব্রাস।’ জানা গেছে, নেব্রাস পাওয়ার, কাতার ইলেকট্রিসিটি অ্যান্ড ওয়াটার কোম্পানি (৬০%) ও কাতার হোল্ডিং (৪০%) এর একটি যৌথ উদ্যোগ। প্রতিষ্ঠানটি বিদ্যুৎ ও জল খাতে কৌশলগত বিনিয়োগকারী।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© ২০২১ | বিডি রাইট কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design BY NewsTheme