শাশুড়িকে গরুর মাংস রান্না করে খাইয়ে মন জয় করেছেন পরীমনি

শাশুড়িকে গরুর মাংস রান্না করে খাইয়ে মন জয় করেছেন পরীমনি

পরীমনির স্বামী রাজ

সিনেমায় নাম লেখানোর আগেই বেশ কয়েকবার আলোচনায় এসে জানান দিয়েছেন ক্যারিয়ারের দৌড় কোথায় গিয়ে পৌঁছবে। ছবি মু’ক্তির আগেই আলোচনা ও স’মালোচনার চাদর গায়ে জড়িয়ে দা’পিয়ে বিচরণ করেছেন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ সাইটগুলোতে। সেই ধারাবাহিকতায় একই সূতিকাগারে আবদ্ধ হয়ে আছেন পরীমণি।

 

এদিকে, শাশুড়িকে নিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় নিজের ‘গুণিন’ সিনেমা দেখেছেন ঢাকাই সিনেমার আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণি। পুত্রবধূ ও ছেলে শরিফুল রাজ অভিনীত সিনেমা বেশ ভাল লেগেছে জাহানারা বেগমের। সিনেমাটির প্রিমিয়ার শেষে এক আলাপচারিতায় উচ্ছ্বাসের সঙ্গে বলছিলেন সেই কথা। শুধু সিনেমা দেখেই উচ্ছ্বাসই নয় পুত্রবধূর প্রশং’সায় মেতেছিলেন জাহানারা বেগম।

 

বলেছেন, ‘আমার পুত্রবধূ অনেক ভালো, আমাকে নিজে হাতে রান্না করে খাওয়ায়; মায়া মহব্বত করে। আমাকে আ’ম্মু বলে ডাক দেয়… অনেক খেয়াল করে, আদর যত্ন করে।’ জাহানারা বেগম আরও জানিয়েছেন, পরীর হাতের গরুর মাংস ও চিংড়ি মাছ তাঁর প্রিয়। ‘গুণিন’ সিনেমার জন্য চিত্রনায়িকা পরী মণি ও চিত্রনায়ক শরিফুল রাজের প্রেম গড়িয়েছে সংসারে। ১১ মার্চ দেশের ২০টি সিনেমা হলে মু’ক্তি পেতে যাচ্ছে ‘গুণিন’।

 

গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত এই সিনেমার গল্প গ্রামীণ ওঝা রজব আলী গুণিনকে নিয়ে। তার আধ্যাত্মিক ক্ষমতা ছিল। এই ক্ষ’মতার জোরে গ্রামে তাঁর বিশাল প্রভাব। তাঁর তিন নাতি রহম, আলী ও রমিজ। গুণিনের রহ’স্যজনক মৃ’ত্যুর পরবর্তী পরিস্থিতিতে তার দুই নাতি তথা আপন দুই ভাইয়ের মধ্যে দ্ব’ন্দ্ব ও ত্রিভুজ প্রেমের গল্পই এই চলচ্চিত্রের মূল উপজীব্য।

 

‘গুণিন’ সিনেমার মুখ্য দুই চরিত্রে দেখা যাবে চিত্রনায়ক শরিফুল রাজ ও পরীমণিকে। তাঁরা সিনেমার গল্পে রাবেয়া-রমিজ। এই সিনেমার শু’ট করতে গিয়েই পরিচয়, তার পর প্রণয়, অতঃপর পরিণয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© ২০২১ | বিডি রাইট কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design BY NewsTheme